প্রত্যেক বছর একটা করে পদ্মাসেতু পাচার হয়ে যাচ্ছে: মান্না

বিদেশে অর্থপাচারকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।

শুক্রবার (১১ ডিসেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় তিনি এ আহ্বান জানান।

মান্না বলেন, এই দেশের কত টাকা বছরে লুট হয় তার কোনো হিসাব আছে? একটা হিসাব সরকারি ব্যাংকগুলো দিয়েছে, ব্যক্তি মালিকানায় যে সমস্ত ব্যাংক দিয়েছে, তারা বলেছে যে, প্রত্যেক বছর অন্তত ৭০ হাজার কোটি টাকা বিদেশে পাচার হয়ে যায়।

আরও হুন্ডির মাধ্যমে যায়, ওটা সোয়া লাখ কোটি টাকা। সোয়া লাখ কোটি টাকা বাদ দেন, ৭০ হাজার কোটি টাকা যে প্রতিবছর পাচার হয়ে যায়, ওই টাকা হলে প্রত্যেক বছর একটা করে পদ্মাসেতু বানাতে পারি। এতো গল্প কেন? একটা স্প্যান বসান আর হুলুস্থুল লাগিয়ে দেন। অথচ প্রত্যেক বছর একটা করে পদ্মাসেতু পাচার হয়ে যাচ্ছে, সে ব্যাপারে কোনো ব্যবস্থা নেন না।

মান্না আরও বলেন, শেখ হাসিনা বলেছিলেন, কারা কারা বিদেশের ব্যাংকে টাকা জমা রাখে, তা আমি জানি। জেনে আপনি কি পকেটের মধ্যে রেখে দিয়েছেন? কারা কারা বিদেশি ব্যাংকে চুরি করে টাকা রাখে, তাদের হিসাব নেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনকে লাগিয়ে দেন। যারা চোর, আমার টাকা বিদেশে পাচার করে দেয়, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেন। এই অবস্থা থেকে উত্তরণে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনে নামার আহ্বান জানান নাগরিক ঐক্যের এই নেতা।

এতে আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, কেন্দ্রীয় নেতা অর্পনা রায়, ইশরাক হোসেন, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর।