কে হচ্ছেন হাইয়াতুল উলইয়ার কো-চেয়ারম্যান

শায়খুল হাদিস আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী রহ. এর ই’ন্তেকা’লে বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতির পদটি শূন্য হয়েছে। তার ই’ন্তে’কালে শূন্য হওয়া পদে কে হচ্ছেন বর্তমান সিনিয়র সহ-সভাপতি তা নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছে।

আলেম-উলামা, ছাত্র-শিক্ষক, মাদরাসা মহলসহ সর্বত্রই আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতির শূন্যপদ নিয়ে। বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতি হওয়ার সুবাদে গঠনতন্ত্র মোতাবেক কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ শিক্ষাসংস্থা আল হাইয়াতুল উলইয়ার কো-চেয়ারম্যানও ছিলেন আল্লামা কাসেমী রহ.।আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী রহ. গত ১৩ ডিসেম্বর রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ই’ন্তে’কাল করেছেন। এর আগে গত ৩ অক্টোবর ২০২০ তারিখে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ এর সহ-সভাপতি ও আল হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিয়াতিল কওমিয়া বাংলাদেশ এর কো-চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। কিন্তু নির্বাচনের মাত্র দুই মাস দশ দিন পরেই প্রভূর ডাকে সাড়া দেন তিনি। এতে শূন্য হয় এ দুটি পদ।বর্তমানে এ পদ দুটিতে কে আসছেন তা নিয়েই চলছে আলোচনা। তবে বেফাকের বর্তমান সহ-সভাপতিদের থেকেই কেউ একজন সিনিয়র সহ-সভাপতি হবেন। একথা নিশ্চিত করেই ধারণা করা যাচ্ছে।এদিকে গত ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সালে বেফাকের দশম মজলিসে উমূমী বা কাউন্সিল অধিবেশনে মোট ৩৫ জন নায়েবে সদর বা সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন। তাদের মাঝে মৃ’ত্যু’বরণ করেছেন দুইজন। আরও ৩৩ জন নায়েবে সদর বা সহ-সভাপতি থেকে যে কাউকে নির্বাচন করা হবে বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতির পদে।৩৫ জন সহ-সভাপতিদের মাঝে বর্তমানে বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতির পদের জন্য আলোচনায় রয়েছেন বেফাকের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সম্পৃক্ত থাকা সাবেক ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস।বেফাকের কমিটি তালিকায় সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী রহ. এর পরেই রয়েছে তার অবস্থান। সে বিবেচনায় আলোচনায় এগিয়ে আছেন মুফতি মুহাম্মদ ওয়াক্কাস-ই।তিনি ছাড়াও আলোচনায় আছেন রাজধানীর মাখজানুল উলুম খিলগাঁও মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা নূরুল ইসলাম জিহাদী, ফেনীর আল্লামা নূরুল ইসলাম আদীব, ময়মনসিংহের আল্লামা আব্দুর রহমান হাফেজ্জী, মধুপুরের পীর আল্লামা আব্দুল হামিদ ও কামরাঙ্গিরচর মাদরাসার মহাপরিচালক আল্লামা আতাউল্লাহ ইবনে হাফেজ্জী।তবে আগামী মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর’২০২০) বেফাক অফিসে বসবে খাস কমিটির বৈঠক। সে বৈঠক থেকেই প্রস্তাবনা আসতে পারে বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতি কে হচ্ছেন সে বিষয়ে। তবে প্রস্তাবনা আসলেও চুড়ান্ত অনুমোদন পাবে আমেলার মিটিংয়েই।পরিশেষে বলা যায়, আগামী মঙ্গলবারের বৈঠকের পরেই শেষ হবে সব জল্পনার। অবসান ঘটবে বেফাকের সিনিয়র সহ-সভাপতি কে হচ্ছেন সে প্রশ্নের।