তুরস্কে বিশালাকারের স্বর্ণখনির সন্ধান

বিশালাকারের এক সোনার খনির সন্ধান পেয়েছে তুরস্ক। খনিটিতে প্রায় ৩.৫ মিলিয়ন আউন্স (৯৯ টন) সোনা থাকার সম্ভাবনা রয়েছে, যার মূল্য হবে প্রায় ছয় বিলিয়ন মার্কিন ডলার (৫০ হাজার ৮৮০ কোটি টাকা)। মঙ্গলবার এ খবর দিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলু এজেন্সি।

মধ্যপশ্চিম তুরস্কের সগুত শহরের কাছে খনিটির সন্ধান পাওয়া যায় বলে জানিয়েছেন, দি অ্যাগ্রিকালচারাল ক্রেডিট কোঅপারেশনস অব টার্কি এবং গুবরেতাশ ফার্টিলাইজার প্রডাকশন ফার্মের প্রধান ফখরুদ্দিন পয়রাজ।

তিনি আনাদোলুকে বলেন, ‘আমরা প্রায় ৬ বিলিয়ন ডলার মূল্যের সম্পদ পেয়েছি।’

তিনি আরো বলেন, ‘দুই বছরের মধ্যে আমরা প্রথম স্বর্ণ উত্তোলন করবো এবং এর মূল্য তুর্কি অর্থনীতিতে যোগ করবো।’

এদিকে নতুন স্বর্ণখনি পাওয়ার খবরের পর তুরস্কের শেয়ারবাজার বোরসা ইস্তাম্বুলে গুবরেতাশ কোম্পানির শেয়ারমূল্য ১০ শতাংশের মতো বেড়ে গেছে।

পয়রাজ জানান, ২০১৯ সালে আদালতের রায়ের মাধ্যমে অন্য একটি কোম্পানি থেকে গুবরেতাশ ফার্টিলাইজার এই জমির মালিকানা পায়। তারা নিজেরাই এই খনি থেকে স্বর্ণ উত্তোলনের ব্যবস্থা করবে।

তুরস্কের জ্বালানি ও প্রাকৃতিক সম্পদমন্ত্রী ফাতিহ দোনমেজ গত সেপ্টেম্বরে জানান, তুরস্ক গত বছর ৩৮ টনের মতো স্বর্ণ উৎপাদনের রেকর্ড সৃষ্টি করেছে।

ওই সময় তিনি বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে বার্ষিক স্বর্ণ উৎপাদন এক শ’ টনে নিয়ে যাওয়া।’