অসহায়, শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানো নৈতিক ও মানবিক দায়িত্ব’

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী রেজাউল করীম চরমোনাই পীর শীতার্ত মানুষের পাশে দাঁড়াতে দলীয় নেতা-কর্মীসহ বিত্তবানদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতি তিনি এ আহ্বান জানান।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, দেশের নিম্ন আয় ও ফুটপাতের মানুষসহ উত্তরাঞ্চলের অধিকাংশ মানুষ শীতে দিশেহারা। বিশেষ করে গরীব ও অসহায় মানুষ শীতে অনেক দূর্ভোগ পোহাচ্ছে। মানুষ আশরাফুল মাখলুকাত বা সৃষ্টির সেরা। বনী আদম আশরাফুল মাখলুকাত আজ প্রচন্ড শীতের মধ্যেও খোলা আকাশের নিচে বসবাস করছে। এমতাবস্থায় শীতার্ত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো সকল বিত্তবানদের নৈতিক ও মানবিক দায়িত্ব।

তিনি আরও বলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ অতীতেও অসহায় মানুষের পাশে সাধ্যানুযায়ী দাঁড়ানোর চেষ্টা করে আসছে, ভবিষ্যতেও থাকবে, ইনশাআলস্নাহ। ইসলামের প্রথম যুগে অর্থাৎ হযরত ওমর রা. বলেছিলেন “আমি রাষ্ট্রীয় দায়িত্বে থাকা অবস্থায় যদি একটি বনের কুকুরও না খেয়ে মারা যায় তাহলে আল্লাহর কাছে জবাবদিহি করতে হবে।” ইসলামের দায়িত্বশীলগণ দেশের জন্য দেশের মানুষ তো বটেই পশু-পাখির সেবায় ও তারা সর্বদা ব্যস্ত থাকতেন। এখনও যদি ইসলামী শাসন ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত থাকতো তাহলে আশরাফুল মাখলুকাত এভাবে খোলা আকাশের নিচে প্রচন্ড ঠান্ডা, বৃষ্টি, ঝড়-তুফানে এভাবে থাকতো না।