দুনিয়ায় সাড়া জাগানো পাঁচ স্মার্টওয়াচ

মহামারি করোনার লকডাউনের মধ্যেও বাজারে এসেছে নিত্যনতুন ডিভাইস। এ সময়টায় মানুষ সবচেয়ে বেশি আসক্ত হয়েছেন ডিভাইসে। প্রযুক্তি বাজারে নিত্যনতুন যত ডিভাইস এসেছে, তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি সাড়া ফেলেছে স্মার্টওয়াচ।

স্মার্টফোন ও কম্পিউটারের মতোই এখন অনেক মানুষের দৈনন্দিন জীবনের অংশ হয়ে উঠেছে স্মার্টওয়াচ। বাজারে সাড়া জাগানো কয়েকটি স্মার্টওয়াচ নিয়ে আজকের আয়োজন।

বর্তমান স্মার্টওয়াচগুলো স্মার্টফোনের নোটিফিকেশন, ফিটনেস ট্র্যাকার দেখানোর মতো কাজ করে থাকে। পাশাপাশি হৃদস্পন্দন পর্যবেক্ষণ এবং জিপিএস নোটিফিকেশনও দেখায়। এ ছাড়া কনটাক্টলেস পেমেন্টের জন্যও ব্যবহার করা যায় কিছু স্মার্টওয়াচ।

অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৬

জনপ্রিয় প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপলের ওয়াচ সিরিজ ৬ বছরের সেরা স্মার্টওয়াচের তকমা পেয়েছে। এ সময়ে বাজারে আসা অন্যান্য স্মার্টওয়াচের তুলনায় দাম বেশি হলেও আগের সংস্করণটির সব ফিচারের পাশাপাশি নতুন সংস্করণে আরও কিছু দারুণ ফিচার যোগ করেছে অ্যাপল। অলওয়েজ অন ডিসপ্লে, রক্তচাপ মাপা এবং ইসিজি বা ইকেজির মতো উন্নত ফিচার রয়েছে অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৬-এ। বছরের সেরা স্মার্টওয়াচ হলেও এটির কিছু সীমাবদ্ধতাও রয়েছে। শুধু আইফোনের সঙ্গে চলবে অ্যাপল ওয়াচ এবং বাজারের অন্যান্য প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠানের স্মার্টওয়াচের চেয়ে ব্যাটারি লাইফ অনেকটাই কম। বাংলাদেশে এ স্মার্টওয়াচটির দাম প্রায় আধা লাখ টাকার কাছাকাছি।

ফিটবিট ভেরসা ৩

আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড উভয় ডিভাইসের সঙ্গে কাজ করার উপযোগী স্মার্টওয়াচ ফিটবিট ভেরেসা ৩ বর্ষসেরা স্মার্টওয়াচের তালিকায় উঠে এসেছে। অ্যামাজনের অ্যালেক্সা বা গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্যবহার করা যাবে এ স্মার্টওয়াচটিতে। বাজারের অন্যান্য প্রতিদ্বন্দ্ব^ী প্রতিষ্ঠানের মতো অনেক অ্যাপ এবং ফিচার না থাকলেও বেশকিছু স্বাস্থ্য এবং ফিটনেস ফিচার রয়েছে এতে। রাতে গ্রাহকের শরীরের তাপমাত্রার রেকর্ড রাখতেও সক্ষম এ স্মার্টওয়াচটি। এ স্মার্ট ঘড়িটি ১৫-২০ হাজার টাকার মধ্যেই।

অ্যামাজফিট নিও স্মার্টওয়াচ

রেট্রো ডিজাইনের অ্যামাজফিট নিও স্মার্টওয়াচটিতে রয়েছে ২৮ দিন ব্যাটারি লাইফ। এ ছাড়া অ্যাপলের মতো এ ঘড়িতে অলওয়েজ-অন ডিসপ্লে রয়েছে। এ ছাড়াও রয়েছে ৫ মিটার ওয়াটার রেজিস্ট্যান্ট। এ ছাড়াও আছে ৪টি ফিজিক্যাল বাটন। চমৎকার এ স্মার্টওয়াচ যেমন হার্টরেট মাপতে পারে, তেমনি আবার এতে রয়েছে স্লিপ মনিটরের মতো অসামান্য ফিচার। রানিং, ওয়াকিং এবং সাইক্লিং-এ তিন ধরনের স্পোর্টস মোড রয়েছে ডিভাইসটিতে। এর ডিসপ্লে ১.২ ইঞ্চির। এটির বাজারমূল্য ২৫০০ থেকে ৩ হাজারের মধ্যে।

গার্মিন ভেনু এসকিউ

ফিটনেসে মনোযোগী গ্রাহকের জন্য গার্মিন ভেনু এসকিউ এই স্মার্টওয়াচটি তার জন্য খুবই প্রয়োজনীয়। আইওএস এবং অ্যান্ড্রয়েড উভয় ডিভাইসের সঙ্গেই চলবে গার্মিন ভেনু এসকিউ। জিপিএস, হৃদস্পন্দন মাপা এবং দৌড়ের বিভিন্ন তথ্য দেখাবে স্মার্টওয়াচটি। পাশাপাশি ঘুমের বিশ্লেষণ এবং অক্সিজেনের মাত্রা পরিমাপে সক্ষম ডিভাইসটি। জিওনি স্মার্ট লাইফ চতুর্থ নম্বরে ২৪ ঘণ্টা হার্টরেট মনিটরিং করার বিশেষ ফিচারবিশিষ্ট এ হাতঘড়িটি। এতে ১.৩ ইঞ্চির আইপিএস কালার ডিসপ্লে দেয়া হয়েছে। এতে ২.৫ ডি কার্ভড কর্নিং গরিলা গ্লাস প্রোটেকশনও রয়েছে। ৫ মিটার পর্যন্ত ওয়াটার-রেজিস্ট্যান্স ক্ষমতা রয়েছে এ স্মার্টওয়াচের।

অ্যাপল ওয়াচ এসই

নতুন স্মার্টওয়াচ ব্যবহারকারীদের জন্য অন্যতম হতে পারে অ্যাপলের বিশেষ সংস্করণের এ স্মার্টওয়াচটি। অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৬-এর অনেক ফিচারই পাওয়া যাবে অপেক্ষাকৃত কম মূল্যের এ অ্যাপল ওয়াচ এসই ডিভাইসটিতে। আর ব্যাটারি স্থায়িত্বও পাওয়া যাবে বেশি। তবে অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৬-এর মতো ইসিজি থাকলেও অলওয়েজ-অন ডিসপ্লে ফিচার থাকছে না এ স্মার্টওয়াচটিতে। বাংলাদেশের বাজারে এটি পাওয়া যাচ্ছে ৩০-৩৫ হাজার টাকার মধ্যে।