যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক হলেন মাদরাসাছাত্রী নিশা মোহাম্মদ রফিক

ড. নিশা মোহাম্মদ রফিক (৩২) যুক্তরাষ্ট্রের ইয়েল বিশ্ববিদ্যালয়ের পোস্ট-ডক্টরাল গবেষক। সম্প্রতি তিনি মস্তিষ্কের বিভিন্ন রোগ নিয়ে গবেষণা করছেন। এসব গবেষণার মধ্যে মস্তিষ্কের অ্যালঝেইমার রোগও আছে।

তিনি বলেন, ‘যে সব ব্যক্তির অ্যালঝেইমার রোগ আছে তারা পাগলের মতো আচরণ করে। সিংগাপুরে ‘মস্তিষ্কের বিভিন্ন রোগ সংক্রান্ত বিজ্ঞানকে’ খুব গুরুত্ব দেয়া হয়। কারণ, দেশটিতে প্রচুর বৃদ্ধ মানুষ আছে।

আমি আমার কাজকে এমন একটি স্তরে নিয়ে যেতে চাই যার মাধ্যমে অন্যদের উপকার হয়। আমি কোনো মৌলিক বিজ্ঞান তৈরী করতে চাই না, যা মানুষকে আনন্দ দিবে বা তাদের কৌতুহল নিবারণ করবে। কিন্তু আমি বিজ্ঞানের ক্ষেত্রে এমন কাজ করতে চাই যার ফলাফল হবে যুগান্তকারী।’

বিজ্ঞান সম্পর্কে তীব্র আগ্রহ থাকার কারণে তিনি তার মতো বিজ্ঞানপ্রেমী লোকদের সমবেত করেন এবং মাদরাসা ওয়াক তানজংয়ে প্রথম একটি বিজ্ঞান ক্লাব গঠন করেন।

তখন তার বয়স ছিল মাত্র ১৪ বছর। ড. নিশা যখন তেমাশেক পলিটেকনিকে ‘বায়োক্যামিকাল সাইন্স’ নিয়ে পড়া শুরু করেন তখন তিনি ভেঙে পড়েন। কারণ, তিনি আরবি সাহিত্যকে খুব ভালোবাসতেন, আর তার মন চাচ্ছিল মাদরাসায় ফিরে গিয়ে আরো পড়াশোনা করতে এবং মিসরের আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আরবি সাহিত্যে পড়তে।