নামাজে দাঁড়ানোর সময় মৃ’ত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন শোয়েব

মসজিদে মাগরিবের নামাজে দাঁড়ানোর সময় মৃ’ত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন রংপুর সিটি করপোরেশনের স্যানিটারি ইন্সপেক্টর ইবনে আজিজ মো. শোয়েব ইকবাল। বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) মসজিদের ভেতরে তিনি শেষ নিঃশ্বা’স ত্যাগ করেন।

শোয়েব ইকবাল রংপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক প্রয়াত ছফুরা খাতুনের বড় ছেলে। তিনি রংপুর জিলা স্কুল ও কারমাইকেল কলেজের প্রাক্তন ছাত্র।

মৃ’ত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর। মৃ’ত্যুকা’লে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন এবং শুভাকাঙ্ক্ষী রেখে যান।

শোয়েব ইকবালের মামাতো ভাই রংপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতি রশীদ বাবু জানান, প্রতিদিনের মতো মাগরিবের নামাজ আদায় করার জন্য রংপুরের জুম্মাপাড়া সদর জামে মসজিদে গিয়েছিলেন শোয়েব ইকবাল।

মুয়াজ্জিন আকামত দেয়ার সময় তিনিও চেয়ার থেকে উঠে দাঁড়াতে গিয়ে পরে যান। এ সময় মসজিদে অবস্থানরত অন্য মুসল্লিরা এগিয়ে এসে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃ’ত ঘোষণা করেন।

রশীদ বাবু আরও জানান, এর আগেও একবার শোয়েব ইকবাল স্ট্রোক করেছিলেন। শারীরিক অসু’স্থতার কারণে মসজিদে গিয়ে তিনি চেয়ারে বসে থাকতেন। নামাজ শুরু হলে দাঁড়িয়ে তা আদায় করতেন।

তার জানা’জার নামাজ শুক্রবার (১৯ মার্চ) জুমার নামাজের পর জুম্মাপাড়া করিমিয়া নুরুল উলুম মাদরাসা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হবে। মুনশিপাড়া কব’রস্থানে তাকে দা’ফন করা হবে।