করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলেন বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার রোনালদো

সাম্প্রতিক সময়ে গণমাধ্যমের শিরোনামে প্রাধান্য বিস্তার করেছে করোনাভাইরাস। এশিয়াসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে এই ভাইরাস। ছোঁয়াছে এই ভাইরাসের প্রভাব ক্রীড়াঙ্গনেও ছড়িয়ে পড়ছে। ইতালির শীর্ষ ফুটবল ক্লাব জুভেন্টাসের খেলোয়াড় ডনিয়েলরুগানি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আইসেলেশনে রয়েছেন।

তার সতীর্থ বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো হোম কোয়ারেনটাইনে রয়েছেন। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল এবংখেলাধুলা বিষয়ক আন্তর্জাতিক জনপ্রিয় ওয়েবসাইটগোল ডটকমেরখবরে বলা হয়, রোনালদো পর্তুগালের মাদেইরাতে অবস্থিত তার বাড়িতে কোয়ারেনটাইনে রয়েছেন।

গত রোববার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সতীর্থ রুগানির সঙ্গে খেলেছেন রোনালদো। সেই ম্যাচে ইন্টার মিলানের বিপক্ষে ২-০ গোলে জয় পায় জুভেন্টাস। ম্যাচ শেষে রুগানির সঙ্গে রোনালদোকেউদযাপন করতেও দেখা যায়। হয়তো ড্রেসিংরুম শেয়ার বা খেলা শেষে উদযাপনের সময় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারেন রোনালদো।

গাম্বিয়ায় পুরো রমজান মাস জুড়ে নাচ-গান নিষিদ্ধ ঘোষণা

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিবা আসন্ন রমজানে (৬ জুন থেকে শুরু) যেকোনো ধরনের প্রকাশ্য নাচ, গান ও নাটক নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। দেশটির পুলিশ বলছে, কেউ এই নির্দেশনা অমান্য করলে তার জেল হতে পারে। কেউ এই আইন অমান্য করলে কর্তৃপক্ষকে অবগত করার জন্যও আহ্বান জানিয়েছে তারা।

গাম্বিয়া পুলিশের মুখপাত্র লামিন নাইজি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এএফপিকে বলেছে, ‘পুলিশ কর্তৃক রমজান মাসে নাচ, গান ও নাটক নিষিদ্ধের সিদ্ধান্তকে জনগণ স্বাগত জানিয়েছে এবং আইন অমান্য করার অপরাধে (গত বছর) একজনকেও গ্রেপ্তার করা হয়নি।’
গত সপ্তাহে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে পুলিশ সতর্ক করে বলে, যেকোনো ধরনের উৎসব, আয়োজন ও অনুষ্ঠানে দিনে বা রাতে নাটক, গান ও নাচ নিষিদ্ধ। সবাইকে এই আইন মান্য করার আহ্বান করা হচ্ছে। নতুবা আইন প্রয়োগে কোনো প্রকার ছাড় দেওয়া হবে না এবং অভিযুক্তরা গ্রেপ্তার হবে।

উল্লেখ্য, গত ডিসেম্বরে গাম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইয়াহইয়া জামিহ দেশটিকে ইসলামী রাষ্ট্রে উন্নীত করার ঘোষণা দেন। তবে তিনি জোর দিয়ে বলেন, দেশের সংখ্যালঘু খ্রিস্টান সম্প্রদায় পূর্ণ নাগরিক অধিকার ও স্বাধীনতা ভোগ করবে এবং নারীদের ওপর বিশেষ পোশাক রীতি চাপিয়ে দেওয়া হবে না। গাম্বিয়ার ৯০ শতাংশ নাগরিক মুসলিম।

গাম্বিয়ায় পুরো রমজান মাস জুড়ে নাচ-গান নিষিদ্ধ ঘোষণা

পশ্চিম আফ্রিকার দেশ গাম্বিবা আসন্ন রমজানে (৬ জুন থেকে শুরু) যেকোনো ধরনের প্রকাশ্য নাচ, গান ও নাটক নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে। দেশটির পুলিশ বলছে, কেউ এই নির্দেশনা অমান্য করলে তার জেল হতে পারে। কেউ এই আইন অমান্য করলে কর্তৃপক্ষকে অবগত করার জন্যও আহ্বান জানিয়েছে তারা।

গাম্বিয়া পুলিশের মুখপাত্র লামিন নাইজি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এএফপিকে বলেছে, ‘পুলিশ কর্তৃক রমজান মাসে নাচ, গান ও নাটক নিষিদ্ধের সিদ্ধান্তকে জনগণ স্বাগত জানিয়েছে এবং আইন অমান্য করার অপরাধে (গত বছর) একজনকেও গ্রেপ্তার করা হয়নি।’
গত সপ্তাহে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে পুলিশ সতর্ক করে বলে, যেকোনো ধরনের উৎসব, আয়োজন ও অনুষ্ঠানে দিনে বা রাতে নাটক, গান ও নাচ নিষিদ্ধ। সবাইকে এই আইন মান্য করার আহ্বান করা হচ্ছে। নতুবা আইন প্রয়োগে কোনো প্রকার ছাড় দেওয়া হবে না এবং অভিযুক্তরা গ্রেপ্তার হবে।

উল্লেখ্য, গত ডিসেম্বরে গাম্বিয়ার প্রেসিডেন্ট ইয়াহইয়া জামিহ দেশটিকে ইসলামী রাষ্ট্রে উন্নীত করার ঘোষণা দেন। তবে তিনি জোর দিয়ে বলেন, দেশের সংখ্যালঘু খ্রিস্টান সম্প্রদায় পূর্ণ নাগরিক অধিকার ও স্বাধীনতা ভোগ করবে এবং নারীদের ওপর বিশেষ পোশাক রীতি চাপিয়ে দেওয়া হবে না। গাম্বিয়ার ৯০ শতাংশ নাগরিক মুসলিম।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.