তুরস্কে সাত মাসের বেতন দিয়ে করোনা ভাইরাস তহবিল গঠন করে নজির গড়লেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান

বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাসের প্রকোপ পড়েছে তুরস্কেও। ইতিমধ্যেই তুরস্কে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৮২৭ জন। মৃত্যু হয়েছে প্রায় ১৬৮ জন। ঠিক এই পরিস্থিতিতে করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় এক বিশেষ তহবিল গঠন করলেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান।

তহবিল গঠনের শুরুতেই প্রেসিডেন্ট এরদোগান নিজেই সাত মাসের বেতন দিয়ে কার্যত নজির স্থাপন করেন। জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া এক ভাষণে তিনি জানান, ব্যক্তিগতভাবে আমার সাত মাসের বেতন দানের মধ্য দিয়েই আমরা তহবিল গঠনের কাজ শুরু করছি। করোনা মোকাবিলায় নেওয়া যাবতীয় পদক্ষেপের ফলে নিম্ন আয়ের সাধারণ মানুষ অর্থনৈতিক দিক থেকে ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তাই তাদের পাশে দাঁড়াতে ও সহায়তা দিতেই মূলত এই বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।তুরস্কের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম আনাদোলু এজেন্সি জানিয়েছে, এরদোগানের মন্ত্রিসভার সকল সদস্য ও আইনপ্রণেতারাও ইতোমধ্যেই এই তহবিলে ৫.২ মিলিয়ন তার্কিস লিরা অর্থ দান করেন। এদিকে করোনা মোকাবেলায় দেশটিতে অবাধ চলাচলেও রাশ টানা হয়েছে। বেচাকেনা, ভিড় এড়াতে নানারকম পদক্ষেপও গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট এরদোগান এই কঠিন সময়ে তার দেশের নাগরিকদের ধৈর্য ধারণ ও ত্যাগ সাধনের পরামর্শ দিয়ে বলেন, সরকারী নির্দেশনা আমরা সঠিকভাবে মেনে চললে আল্লাহতাআলার ইচ্ছায় খুব দ্রুত আমরা সংকট কাটিয়ে উঠতে পারবো। তিনি জনতাকে আশার আলো দিয়ে বলেন, আমরা যদি সজাগ ও সতর্ক থাকি তাহলে আমাদের জন্য সামনে উজ্জ্বল দিন অপেক্ষা করছে। সব নাগরিক আমাদের কাছে সমান। ‘ঘরে থাকো তুরস্ক। বলে স্লোগানেও কথা তুলে ধরেন তিনি।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.