নামাজ পড়ছে কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের দুই সন্তান

নন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদ ও অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওনের দুই শিশুসন্তানের নামাজ পড়ার ছবি ফেসবুকে ভাই’রাল হয়েছে। ছবি দুটি নিজের ফেসবুক হ্যান্ডেলে পোস্ট করেছিলেন নিশাদ ও নিনিতের মা মেহের আফরোজ শাওন। রবিবার সন্ধ্যায় শাওনের পোস্ট করা ছবির ক্যাপশনে তিনি লেখেন– ‘বিরাজ সত্য সুন্দর…’।

শাওনের পোস্ট করা ছবিওতে দেখা যায়, ধানমণ্ডির দখিন হাওয়া ফ্ল্যাটে নিশাদ হুমায়ূন ও নিনিত হুমায়ূনের মাঝখানে শিশুকে নামাজ পড়ছে। হুমায়ূন আহমেদের শিশুসন্তানদের নামাজ পড়ার দৃশ্য দেখে ফেসবুকে সবাই প্রশংসা করেছেন। রাজিয়া রহমান জলি নামের একজন লিখেছেন, ‘ওদের দোয়ায় যেন শান্তি ফিরে আসে জীবনে।’

লুৎফর রহমান নামের একজন লিখেছেন, ‘খুব মনোযোগ দিয়ে মহান সৃষ্টিকর্তার নিকট নিজেকে সোপর্দ করেছেন বাপজানরা। এটিই হচ্ছে একজন সফল বাবা-মায়ের শ্রেষ্ঠ প্রাপ্তি। আল্লাহ এই নিষ্পাপ বাচ্চাদের দিকে তাকিয়ে আমাদের ক্ষমা করো। ফারহাত নামের একজন লিখেছেন, ‘আপু বাচ্চাগুলোকে রাসুল (সা.) এর আদর্শে আদর্শিত করবেন। এই দোয়া করি।’

প্রসঙ্গত হুমায়ূন-শাওন দম্পতির প্রথম পুত্রসন্তান নিশাদ হুমায়ূন জন্মগ্রহণ করে ২০০৭ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি। আর ২০১০ সালের ৬ সেপ্টেম্বর নিনিত হুমায়ূন পৃথিবীর আলো দেখে।

১৫ জেলায় ছড়িয়েছে করোনা

নভেল করোনাভাইরাস দেশের ১৫ জেলায় ছড়িয়েছে। এর মধ্যে ঢাকা মহানগর, নারায়ণগঞ্জ, মাদারীপুর ও গাইবান্ধা জেলাতে একই এলাকায় কম দূরত্বে একাধিক আক্রান্ত ব্যক্তি পাওয়া গেছে।

সোমবার নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের সর্বশেষ পরিস্থিতি জানাতে অনলাইন ব্রিফিংয়ে এসে এসব তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ বলেন, এখন পর্যন্ত ১২৩ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আমার কাছে ১২১ জনের তথ্য আছে। এদিন তিনি দেশের ১৫টি জেলার পরিসংখ্যান তুলে ধরেন।

আবুল কালাম আজাদ বলেন, বাংলাদেশের ১৫টি জেলায় কেইস পেয়েছি। ক্লাস্টার আমরা বলব, যেখানে একাধিক ব্যক্তি আছেন এবং এক জায়গার মধ্যে সীমাবদ্ধ আছেন, সে জায়গাটা। এ ধরনের ব্যবস্থা (ক্লাস্টার) হতে পারে ঢাকা মহানগরী, নারায়ণগঞ্জ, মাদারীপুর, গাইবান্ধায়।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.