শান্তির জন্য কোরআন অনুসরণের আহবান পুতিনের!

আরব বিশ্বের মধ্যে শান্তি বজায় রাখতে তুরস্ক ও ইরানের প্রেসিডেন্টকে কোরআনের আয়াত অনুসরণ করার আহবান জানালেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। গত সপ্তাহে তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপে এরদোয়ান ও ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানিসহ তিন দেশের কূটনীতিকদের নিয়ে অনুষ্ঠিত শীর্ষ বৈঠকে তিনি এ আহবান জানান।

রুশ প্রেসিডেন্ট তাঁর বক্তৃতায় ইয়েমেন যু’দ্ধের ব্যাপারে আরব নেতাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, আরব উপদ্বীপের শান্তি, নিরাপত্তা ও স্থিতি ফিরিয়ে আনতে ইয়েমেন যু’দ্ধের অবসান প্রয়োজন। এ সময় তিনি সুরা আল ইমরানের ১০৩ নম্বর আয়াতের কিছু অংশ উদ্ধৃত করেন।

যার অর্থ, ‘তোমাদের প্রতি আল্লাহর অনুগ্রহ স্মরণ করো, যখন তোমরা ছিলে পরস্পরের শত্রু। অতঃপর তিনি তোমাদের অন্তরে সদ্ভাব সৃষ্টি করলেন, ফলে তাঁর অনুগ্রহে তোমরা পরস্পর ভাই হয়ে গেলে’। অর্থাৎ, এ কথা স্পষ্ট যে তিনি আরব দেশগুলোকে নিজেদের মধ্যে সংঘাত এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছেন। তাদেরকে এক হয়ে চলার আহবান জানিয়েছন।

তথ্য সূত্রঃ ডেইলিমর্নিং২৪

আমি কালো জিরা ও মধু খেয়ে করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছি

নাইজেরিয়ার ওয়ো রাজ্যের গভর্নর সেয়ি মাকিন্দে করোনায় আক্রা’ন্ত হয়েছিলেন। গত সপ্তাহেই ধ’রা পড়ে তিনি করোনায় আক্রা’ন্ত ছিলেন। কিন্তু এখন তিনি করোনা মুক্ত। করোনার হাত থেকে বেঁচে ফিরেছেন। পরে সোমবার তিনি জানিয়েছেন, কি করে করোনার সঙ্গে যু’দ্ধ করেছেন। কি ধরনের খাবার তিনি খেয়েছেন।

করোনায় আক্রা’ন্ত হওয়ার পর থেকেই তিনি আইসোলেশন ছিলেন। করোনার সঙ্গে যু’দ্ধ করেছেন। অবশেষে তিনি জয় পেয়েছেন। তিনি জানিয়েছেন, শুধু কালোজিরা আর মধু খেয়েই তিনি করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন। করোনার হাত থেকে বাঁচতে শরীরের ইমিউনিটিকে শক্তিশালী করার কথা বলেন তিনি। তিনি বলেন, ইমিউনিটিকে শক্তিশালী করার উপাদান আমাদের হাতের কাছেই রয়েছে।

গভর্নর সেয়ি মাকিন্দে বলেন, ওয়ো রাজ্যের স্বাস্থ্যসেবা বোর্ডের নির্বাহী সচিব ড. মাইদেন ওলাতুনজি আমার হাতে কালোজিরা তুলে দেন। তার সঙ্গে মধু মিশিয়ে দেন তিনি। আমি সেটা খেয়েছি। আর এই প্রাকৃতিক উপাদানগুলোই ইমিউনিটিকে শক্তিশালী করে আর করোনা ভাইরাস নি’র্মূল করে।

তিনি বলেন, মাইদেন ওলাতুনজি কালোজিরা আর মধুর মিশ্রণটি সকালে একবার ও সন্ধ্যায় একবার খেতে বলেন। আমি সেই উপদেশ মেনে চলেছি। আমি এখন ঠিক আছি। সুস্থ অনুভব করছি। আমি এখন করোনা মুক্ত। আমি বলতে চাই, করোনার এই সময়ে আত’ঙ্কিত হলে চলবে না। চিকিৎসকের উপদেশ মেনে চললে অতি দ্রুত সুস্থ হওয়া যায়।

মন্তব্যসমূহ বন্ধ করা হয়.