ইমামকে লাঞ্ছিত করায় যুবলীগ নেতাকে সমাজচ্যুত করলেন এলাকাবাসী!

ময়মনসিংহের ত্রিশালে ইমামকে লাঞ্ছিত করায় যুবলীগ নেতা শফিকুল ইসলাম শফিকে সমাজ থেকে একঘরে করে সমাজচ্যুত করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার দুপুরে উপজেলার সম্মুখ বৈলর গ্রামে।

স্থানীয়রা জানান, সম্মুখ বৈলর জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা নিজাম উদ্দিন মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় ১২ বছর আগে জমি ক্রয় করেন। সেই জমি বৈলর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফি বছরখানেক যাবত দখলের চেষ্টা করে আসছেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

ঘটনার দিন শুক্রবার জুমার নামাজের আগে মসজিদের সামনে শফি তার লোকজন নিয়ে ইমাম সাহেবের সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়ায়। একপর্যায়ে ইমামকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে।

এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ হয়ে উপস্থিত মুসল্লি ও স্থানীয় সাধারণ মানুষ শফিকে আটক করে একটি দোকানে রেখে নামাজ পড়তে যান। পরে শফির পরিবারের লোকজন সামাজিকভাবে বিচারের আশ্বাস দিয়ে ছাড়িয়ে নিয়ে যান।

ওই দিন আসর নামাজের পর স্থানীয় এলাকাবাসী ও মুসল্লিরা এ ঘটনার প্রতিবাদে প্রতিবাদ সভায় শফিকে একঘরে করে সমাজচ্যুত করেন।

প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন- বৈলর ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান আসাদ, মসজিদ কমিটির সভাপতি আশরাফ আলী, সাধারণ সম্পাদক ইউনুস আলী মাস্টার, ইউনিয়ন কৃষক লীগের যুগ্ম আহবায়ক কামরুজ্জামান কাজল, ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জুলফিকার আলী, সাধারণ সম্পাদক সোহেল রানা প্রমুখ।

মসজিদের ইমাম মাওলানা নিজাম উদ্দিন বলেন, শফি দলীয় প্রভাব খাটিয়ে দীর্ঘ দিন যাবত আমার ক্রয় করা জমি দখল করার চেষ্টা করছেন। ঘটনার দিন কোনো কারণ ছাড়াই তিনি তার লোকজন নিয়ে আমাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করেন। তাই সমাজের লোকজন তাকে একঘরে করে সমাজচ্যুত করেছেন।

এ বিষয়ে শফিকুল ইসলাম শফি বলেন, আমাকে সমাজচ্যুত করেনি। আমি রাজনীতি করি; এ বছর এই ইউনিয়ন থেকে চেয়ারম্যান নির্বাচন করব। রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য আমার প্রতিপক্ষরা এ ধরনের অপপ্রচার চালাচ্ছে। সূত্র: যুগান্তর

প্রাচ্য কিংবা পাশ্চাত্য কোথাও নিজ অবস্থান থেকে এক চুলও সরে আসবে না তুরস্ক: হুংকার এরদোয়ানের

রিসেপ তায়্যেপ এরদোয়ান বলেন, প্রাচ্য কিংবা পাশ্চাত্য কোথাও নিজ অবস্থান থেকে এক চুলও সরে আসবে না তুরস্ক। শনিবার (২১ নভেম্বর) হ্যালিফ্যাক্স ইন্টারন্যাশনাল সিকিউরিটি ফোরামের এক অনুষ্ঠানে দেওয়া ভাষণে এমন মন্তব্য করেছেন তিনি।

এ সময় এরদোয়ান বলেন, প্রাচ্য কিংবা পাশ্চাত্য কোথাও আমাদের পিছু হটার সুযোগ নেই। ইউরোপের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়ন করতে হবে। তবে কোনোভাবেই আমরা কখনও এশিয়া ও আফ্রিকাকে উপেক্ষা করতে পারি না।

তিনি আরও বলেন, ভৌগোলিকভাবে তুরস্ক একটি আফ্রিকান-ইউরেশীয় দেশ। এ কারণে নিজেদের একটি সংকীর্ণ কাঠামোর মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখা আমাদের জন্য শুধু ভুলই নয়। এটি কখনো সম্ভবও হবে না।

এদিকে রাশিয়ার সঙ্গে তুরস্কের সাম্প্রতিক সম্পর্ক নিয়েও কথা বলেন এরদোয়ান। তিনি বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে আমাদের এই সময়ে গভীর সম্পর্ককে আমেরিকার সঙ্গে দীর্ঘদিনের সম্পর্কের বিকল্প হিসেবে ভাবছি না।

এরদোয়ান বলেন, ‘ন্যাটোতে আমাদের অবস্থানকে আমরা অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করি। ৬৮ বছর ধরে আমরা এ জোটের সদস্য। তুরস্কের সীমান্ত ন্যাটোরও সীমান্ত।’

এরদোয়ান হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, সংকীর্ণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্য নিয়ে বাস্তবতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার সুযোগ তৈরি করলে তুরস্ক কাউকে সুযোগ দেবে না। এমন এক সময়ে এরদোয়ান এসব কথা বললেন, মাত্র কয়েক দিন আগেই যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও তুরস্ক সফর নিয়ে দুই দেশের মধ্যে অস্বস্তি তৈরি হয়।

ওই সফরে পম্পেও শুধু খ্রিস্টান ধর্মীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন। তুরস্কের কোনও কর্মকর্তার সঙ্গে তার আনুষ্ঠানিক কোনও বৈঠক হয়নি।
এদিকে নাগোর্নো-কারাবাখ ইস্যুতে তুরস্কের অবস্থানের একদম বিপরীতে যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সসহ পশ্চিমা দেশগুলো।

তুরস্কের পৃষ্ঠপোষকতায় নাগোর্নো-কারাবাখে বড় জয় ছিনিয়ে আনে আজারবাইজান। পরে রাশিয়ার মধ্যস্থতায় আজারবাইজান-আর্মেনিয়ায়ার মধ্যে যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। চুক্তি অনুযায়ী এরই মধ্যে কারাবাখে রুশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। পরে ওই অঞ্চলে তুর্কি বাহিনী মোতায়েনে পার্লামেন্টের অনুমোদন নেয় তুরস্ক।

ধর্মের টানে বলিউড ছাড়া সেই অভিনেত্রী এখন মুফতির স্ত্রী

ধর্মের টানে গত অক্টোবরে অভিনয় ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী সানা খান। ধর্মকর্মে মন বসাতে বলিউডের রঙিন দুনিয়া ত্যাগ করার ঘোষণা দিয়ে হৈ চৈ ফেলে দেন এই অভিনেত্রী।

এবার তিনি আলোচনায় এলেন গুজরাটের মাওলানা মুফতি আনাসকে বিয়ে করে। ভারতীয় বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে তার বিয়ের তথ্য জানানো হয়েছে।

শুক্রবার সানার বিয়ে হয়েছে। বিয়ের অনুষ্ঠানের পর কেক কেটে উদযাপনও করতে দেখা যায় নব দম্পতিকে। সানার স্বামী মুফতি আনাস সম্পর্কে জানা গেছে, তিনি গুজরাটের একজন বুজুর্গ আলেম।

উল্লেখ্য, মডেলিং দিয়ে কর্মজীবন শুরু করেন সানা। সানা প্রায় ৫টি ভাষায় ১৪টি চলচ্চিত্রে এবং ৫০টির মত বিজ্ঞাপনে কাজ করেছেন। তবে তিনি দর্শকের কাছে সব থেকে বেশি আলোচিত বিগ বস সিজন ৬ এবং বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের ‘জয় হো’ সিনেমায় অভিনয়ের মাধ্যমে।

ভারতের আকাশে পাকিস্তানি ড্রোন; এক সপ্তাহে তিন বার হানা

ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠছে পাক-ভারত সীমান্ত। শনিবার সন্ধ্যায় জম্মু কাশ্মীরের সাম্বা সেক্টরে সীমান্ত পেরিয়ে পাকিস্তানের দুটি ড্রোন উড়তে দেখা গেছে। খবর জি নিউজের।

খবরে বলা হয়, পুরোপুরি শীত পড়ার আগেই বড় ধরনের কোনো পরিকলল্পনার ছক আঁকছে পাকিস্তান। গতিপ্রকৃতি দেখে তেমনই মনে হচ্ছে। সাম্প্রতিককালে অনেকবারই সীমান্তের বিভিন্ন জায়গায় পাকিস্তানের বেপরোয়া আচরণ দেখা গেছে। তা থেকেই ভারতীয় গোয়েন্দাদের আশঙ্কা, পাকিস্তান বোধহয় ভারতের ওপর কোনও বড় ধরনের হামলা চালানোর ছক কষছে!

খবরে আরও বলা হয়, শনিবার সকালেও জম্মুর বিভিন্ন এলাকায় সংঘর্ষবিরতি লঙ্ঘন করে গোলাগুলি ছুড়েছে পাক বাহিনী। এই সংঘর্ষে পাকিস্তানের গোলায় নিহত হয়েছেন এক ভারতীয় জওয়ানও। কাঠুয়া সেক্টরে জখম হয়েছেন আর এক জওয়ান। তবে পিছিয়ে আসেনি ভারত। উপযুক্ত জবাব তারাও দিয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

প্রসঙ্গত, শীতের সময় কাশ্মীরে বরফ পড়ে রাস্তা-পথ সব বন্ধ হয় যায় এবং দুর্গম হয়ে উঠে। ফলে ভারতীয় সীমান্তরক্ষীরা মনে করছেন, এই সময় পাকিস্তান হয়তো তাদের লোক ঢুকিয়ে দেবেন। এ জন্য সতর্ক অবস্থায় রয়েছে ভারতীয় প্রতিরক্ষাব্যবস্থা। অবশ্য কিছুদিন আগে পাকিস্তানের সঙ্গে সংঘর্ষে ৫ ভারতীয় জওয়ানসহ ১১ জন মারা গেছেন।

পাকিস্তানে অনলাইনে ইসলাম-বিরোধী মন্তব্য দেখলেই করা হবে কোটি টাকা জরিমানা

সম্প্রতি ইসলাম বিরোধী, সন্ত্রাসবাদের সমর্থক, পর্নগ্রাফি ও জাতীয় নিরাপত্তার জন্য হুমকি এমন সব কনটেন্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যেন ছড়িয়ে না পড়ে তা নিয়ন্ত্রণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান সরকার। গত বুধবার এক সরকারি সংস্থাকে দেয়া হয়েছে ডিজিটাল কনটেন্ট সেন্সরের ক্ষমতা।

প্রয়োজনে সেই কন্টেন্টে কাটছাট করারও অধিকার থাকবে এই নিয়ামক সংস্থার। হতে পারে জরিমানাও। এমনকি হুমকি দিয়ে বলা হচ্ছে, ৩.১৪ মিলিয়ন ডলার, বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২৬ কোটি টাকারও বেশি জরিমানা নেওয়া হবে যদি ইসলাম বিরোধি কোনও মন্তব্য এই মাধ্যমগুলোতে পাওয়া যায়।

তবে এই প্রয়াসকে কড়া নজরে দেখছে ইন্টারনেট জায়েন্টরা। গুগল ফেসবুক, টুইটারের মতো সংস্থাগুলোর যৌথ মঞ্চ এশিয়া ইন্টারনেট কোয়ালিশনের পক্ষ থেকে এর কড়া নিন্দা করা হয়েছে।

এআইসির তরফ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, পাকিস্তান কনটেন্ট সেন্সরের যে পদ্ধতির কথা বলছে তাতে সাধারণ মানুষ স্বাভাবিকভাবে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবে না।

শঙ্কা প্রকাশ করে প্রতিষ্ঠানটি বলছে, ইন্টারনেট কোম্পানিগুলোকে পাকিস্তান সরকার যেভাবে নিশানা করছে তাতে আমরা শঙ্কিত। সরকারের অস্বচ্ছ পদ্ধতির সেন্সর নিয়ম চাপিয়ে দেয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ করে এআইসি।

এআইসি আরও জানিয়েছে, সেন্সরের ফলে পাকিস্তানের সঙ্গে অন্যান্য দেশের ডিজিটাল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যাবে। এমনকি প্রতিষ্ঠানের সদস্যদের পক্ষে পাকিস্তানিদের জন্য পরিষেবা দেয়া অসম্ভব হয়ে পড়বে।

তবে পাকিস্তান সরকারের পক্ষ থেকে ওই বিবৃতির কোনো প্রতিক্রিয়া জানানো হয় নি।

এর আগে কনটেন্ট সেন্সর না করায় টিকটক নিষিদ্ধ হয় দেশটিতে। পরবর্তীতে কনটেন্ট সেন্সরের প্রতিশুতিতে টিকটক ফিরেছে পাক সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ইরাক থেকে মার্কিন সেনাদের প্রথম দল বিদায় নিয়েছে: কমান্ডার

ইরাক থেকে দখলদার মার্কিন সেনাদের প্রথম একটি দল প্রত্যাহার করা হয়েছে। ইরাকি জয়েন্ট অপারেশন্স কমান্ডের মুখপাত্র মেজর জেনারেল তাহসিন আল-খাফাজি এ খবর দিয়েছেন।

তিনি বলেন, বাগদাদ এবং ওয়াশিংটনের মধ্যে সম্প্রতি স্বাক্ষরিত একটি চুক্তির আওতায় এসব সেনা প্রত্যাহার করেছে আমেরিকা। আল-খাফাজি গতকাল (শুক্রবার) রাশিয়ার স্পুৎনিক বার্তা সংস্থাকে জানান, আজ থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শুরু হয়েছে এবং প্রথম ব্যাচে ৫০০ সেনা প্রত্যাহার করা হচ্ছে।

তিনি জানান, ইরাকে যেসব সেনা থাকছে সেগুলো কম্ব্যাট ইউনিট না। এসব সেনা মূলত উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশের বিরুদ্ধে বিমান হামলায় সমর্থন দেবে, পাশাপাশি পরামর্শমূলক তৎপরতা চালাবে। জেনারেল খাফাজি বলেন, ইরাক এবং আমেরিকার মধ্যকার চুক্তি অনুসারে নির্ধারিত সময়ে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার সম্পন্ন হবে।

গত বুধবার আমেরিকার ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী ক্রিস মিলার বলেন, আগামী জানুয়ারি মাসের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যে ইরাকে মার্কিন সেনা সংখ্যা আড়াই থেকে তিন হাজারের মধ্যে নামিয়ে আনা হবে। আফগানিস্তানে মোতায়েন সেনাও কমিয়ে আনা হবে হলে তিনি ঘোষণা করেন।

ক্যান্সারে আক্রান্ত পুতিন, ক্ষমতা ছাড়বেন নতুন বছরে!

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ক্যান্সারে আক্রান্ত। একই সঙ্গে তার দেখা দিয়েছে পারকিনসন রোগের লক্ষণ। ফেব্রুয়ারিতে তার একবার জরুরি অপারেশনও করা হয়েছে।

রাশিয়ার রাজনৈতিক বিশ্লেষক ভ্যালেরি সলোভেই’কে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে ব্রিটেনের দ্য সান ও দ্য মেইল অনলাইন।

ভ্যালেরি সলোভেই আরও জানিয়েছেন, আগামী বছরের শুরুতে ক্রেমলিন ছাড়ার পরিকল্পনা করছেন পুতিন।

এ মাসের শুরুতে তিনি পুতিনের পারকিনসন রোগ আছে বলে খবর ছড়িয়ে দেন। তারও আগে তিনি বলেছেন, তাকে জানানো হয়েছে প্রেসিডেন্ট পুতিনকে ক্যান্সারের চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

এক্ষেত্রে ক্রেমলিনের কেন্দ্রীয় পর্যায়ে সিদ্ধান্ত হয় যেখান থেকে সেখানকার সূত্র ব্যবহার করেছেন।

ভ্যালেরি সলোভেই বলেছেন, প্রেসিডেন্ট পুতিনের দু’রকম স্বাস্থ্য বিষয়ক সমস্যা দেখা দিয়েছে।

একটি হলো, সাইকো-নিউরোলজিক্যাল প্রকৃতির অর্থাৎ পারকিনসন। অন্যটি হলো ক্যান্সার। ফেব্রুয়ারিতে পুতিনের অপারেশন করানো হয়েছে। কি সমস্যায় অপারেশন করানো হয়েছে তা তিনি বলেননি।

তবে অন্য একটি রাশিয়ান সূত্র দাবি করেছে, পুতিনের পাকস্থলি বা পেটে ক্যান্সারের অপারেশন করানো হয়েছে তখন। এ সময়ে প্রেসিডেন্টের শিডিউলে কিছু ফাঁক রাখা হয়।

উল্লেখ্য, ভ্যালেরি সলোভেই হলেন রাশিয়ান রাষ্ট্রবিজ্ঞানী। ইতিহাসবিদ এবং পাবলিক রিলেশন্স ডিপার্টমেন্ট মস্কো স্টেট ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনের সাবেক প্রধান। গত বছর তিনি পদ ছেড়েছেন। তিনি বলেছিলেন, রাজনৈতিক কারণে তিনি এ সিদ্ধান্ত নিযেছেন।